ডোমেইন কি? ওয়েবসাইট তৈরিতে ডোমেইন এর প্রয়োজনীয়তা এবং সেরা ডোমেইন প্রোভাইডার

ডোমেইন

ডোমেইন (Domain) একটি ইংরেজি শব্দ  এর বাংলা অর্থ হলো স্থান বা ঠিকানা যা ইন্টারনেট জগতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। মূলত, ডোমেইন নাম বলতে সাধারনভাবে কোন একটা ওয়েবসাইটের নামকে বোঝায়।

যেকোন স্বাভাবিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে প্রথমেই ডোমেইন প্রয়োজন হয়। ডোমেইন নাম বলতে সাধারনভাবে কোন একটা ওয়েবসাইটের নামকে বোঝায়। ডোমেইন নাম ক্লাইন্ট কম্পিউটারকে ওয়েব সার্ভারের সাথে সংযোগ স্থাপন করতে সাহায্য করে।  আপনি যদি একটি বাড়ি তৈরি করেন তাহলে যেমন বাড়িতে পৌছানোর জন্য একটি রাস্তার প্রয়োজন হয় তেমনি আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে আপনার একটি ডোমেইন নাম প্রয়োজন হবে; যা আপনার ওয়েবসাইট এর ঠিকানা হিসেবে কাজ করবে।

উদাহারণ হিসেবে ধরুন প্রযুক্তিরসাথে তে ভিজিট করতে আপনি “projuktirsathe.com” ঠিকানা  ব্যাবহার করছেন এবং এটি একটি ডোমেইন যা ইন্টারনেট এ প্রযুক্তিরসাথে কে অ্যাক্সেস করতে প্রয়োজন হয়। ডোমেইন কে ওয়েবসাইট এর প্রাণ বলা যেতে পারে, কারণ একটি ডোমেইন ছাড়া আপনি কোন স্বাভাবিক ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারবেন না।

প্রত্যেক ওয়েবসাইটের একটি নির্দিষ্ট আইপি অ্যাড্রেস (IP Address) থাকে। যেমনঃ 66.220.159.255. সাধারণত আইপি অ্যাড্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট মনে রাখা কষ্টসাধ্য।  তাই মনে রাখার সুবিধার জন্য আইপি অ্যাড্রেসের পরিবর্তে ডোমেইন নাম ব্যবহার করা হয়।

 

ডোমেইন সম্পর্কে কিছু কথাঃ

  • ডোমেইন সবসময় ইংরেজি লেটার দিয়ে তৈরি করা যায়।
  • ডোমেইন ফ্রী হয় না, আপনি ডোমেইন কিনতে চাইলে টাকা দিয়ে কিনতে হবে।
  • বিভিন্ন ডোমেইন এর মূল্য ভিন্ন হয়ে থাকে, যেমন ডটকম সাধারণত ১,০০ টাকা।
  • নিজে কিনতে পারবেন না, যেকোন প্রোভাইডার এর থেকে কিনতে হবে।
  • ডোমেইন এককালীন কোন প্রোডাক্ট না, এর জন্য আপনাকে প্রতি বছর টাকা প্রদান করতে হবে।
  • প্রতি বছর নবায়ন না করলে আপনার ডোমেইন কাজ করা বন্ধ করে দেবে এবং নির্দিষ্ট সময় পরে সেটা অন্য কেউ কিনে নিতে পারবে।

 

মূলত ডোমেইন এর প্রধান অংশ হচ্ছে এর Extension. এখন ভাবছেন Extension আবার কি!? সাধারণ ভাষায় Extension হচ্ছে .com, .net, .org, .news, .xyz ইত্যাদি। এরকম প্রায় ৭০০+ ডোমেইন  Extension রয়েছে। আপনার ব্যাবসা বা ওয়েবসাইট এর বিষয় অনুযায়ী নামের জন্য ডোমেইন Extension কিনতে পারেন।

ধরুন আপনার ব্যাবসার নাম “facebook” আর আপনি নির্ধারণ করলেন  “.com” Extension এর ডোমেইন কিনবেন। সবশেষে আপনি “facebook.com” ডোমেইন টি কিনে ফেলতে পারেন এবং আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। (এটা শুধুমাত্র উদাহরণ!!! “facebook.com” আগেই এক ভদ্রলোক কিনে ফেলেছেন তাই আপনি এটা আর কিনতে পারবেন না!) তো বুঝতেই পারছেন ডোমেইন নির্বাচণ করতে আপনার ব্যাবসার নাম ইউনিক হতে হবে।

 

প্রথম কে ডোমেইন তৈরি করেন!?

প্রথম বানিজ্যিক ডোমেইন নাম (TLD) .com , ১৫ মার্চ ১৯৮৫ সালে প্রথম বাণিজ্যিক ভাবে চালু করা হয়। সর্বোপ্রথম  ডট কম ডোমেন (.com Domain) নাম ক্যাম্ব্রিজের কম্পিউটার ফার্ম সিম্বোলিক্স তাদের ওয়েব সাইট “Symbolics.com” এ ব্যবহার করে। পরবর্তীতে, ডিসেম্বর ২০০৯ সালে তারা ১৯০ মিলিয়ন ডোমেইন নেম রেজিস্ট্রেশন করে!

অফেক্স এ ৫ জিবি ওয়েব হোস্টিং মাত্র ৮০০ টাকা বছর! কুপন কোডঃ CST800

ডোমেইন কোথায় কিনবেন?

GoDaddy বৃহত্তম রেজিস্ট্রার। অন্যান্য বহুল ব্যবহৃত রেজিস্ট্রারগুলির মধ্যে Ofaex, eNom, Tucows, Melbourne IT. অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ইন্টারনেট এ অগনিত কোম্পানী ডোমেইন বিক্রি করে থাকে। যেমন ধরুনঃ

 

আপনি সহজে বাংলাদেশি প্রোভাইডার এর থেকেও ডোমেইন কিনতে। আমার পরামর্শ হলো অফেক্স (Ofaex.com). অফেক্স ডটকম থেকে বিকাশ, রকেট বা নগদ  এ পেমেন্ট করে ডোমেইন কিনতে পারেন। এখান থেকে আপনি সাশ্রয়ী মূল্যে ডোমেইন কিনতে পারবেন।

ওয়েবসাইট, ডোমেইন, হোস্টিং নিয়ে পরর্তীতে আরো অনেক লিখব ইনশাল্লাহ। এই লেখা টি আপনার কেমন লাগলো তা কমেন্ট করে জানাতে পারেন। প্রযুক্তিরসাথে কে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে অবশ্যই বেশি বেশি শেয়ার করুন <3

 

আমি আপন, প্রযুক্তি কে ভালবাসি। প্রযুক্তিপ্রেমি সবাইকে একসাথে একটি সুন্দর প্লাটফর্ম এ একত্রিত করার জন্যই প্রযুক্তিরসাথে ডটকম এর উন্নয়ন এ কাজ করে যাচ্ছি। এছাড়াও একজন ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে অন্যান্য প্রোজেক্ট এ কাজ করে যাচ্ছি। ইনশাআল্লাহ সবাইকে অনেক ভাল কিছু উপহার দিতে পারব <3
Exit mobile version